image

নগরীতে গণটিকার কার্যক্রম উদ্বোধনকালে মেয়র

image

মো: আসিফ খোন্দকার, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, মহল বিশেষের অপপ্রচার ও কুটকৌশল এবং বিদ্বেষকাতর নিন্দুকের মুখে ছাই দিয়ে মর্ডানা কোভিড-১৯ গণটিকা দান কার্যক্রম জনমনে স্বস্তি ও মুক্তির সুবাতাস ছড়িয়েছে।

এখন টিকা গ্রহণের আগ্রহের যে জোযার সৃষ্টি হয়েছে তাতে শরীক না হলে কারও জীবন যদি বিপন্ন ও সংশয়গ্রস্ত হয় তার জন্য নিজেকেই দায়ী হতে হবে। কেননা কঠিন ও প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বয়স, পেশা, শারিরীক অবস্থান ও সক্ষমতা বিবেচনা স্বাপেক্ষে সকলের টিকা প্রাপ্তি নিশ্চিতকরণে দৃঢ় প্রত্যয়ী ও উদ্যোগী হয়েছেন। তিনি আজ শনিবার সকালে নগরীর পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ডের রাহাত্তারপুল এলাকায় মজিদিয়া আলিয়া মাদ্রাসা সংলগ্ন টিকাদান কেন্দ্রে সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী গণটিকা প্রদানের কার্যক্রম উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, আজ থেকে নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডের তিনটি করে কেন্দ্রে বয়োজ্যেষ্ঠ, নারী ও প্রতিবন্ধীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেয়া শুরু হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ২জন ভ্যাক্সিনেটর ও ৩জন স্বেচ্ছাসেবীসহ ৪১টি ওয়ার্ডে ২৪৬জন প্রশিক্ষিত ভেক্সিনেটর ও ৩৬৯ জন সেচ্ছাসেবী থাকবেন। তিনি আরো বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের তত্তাবধানে যে টিকা নিবন্ধন কার্যক্রম চলছে সে ক্ষেত্রে কোন ধরণের অহেতুক ধীরগতি ও সময়ক্ষেপন যাতে না হয় সে ব্যাপারে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে এবং টিকা গ্রহনে সাধারণ নাগরিকদের উদ্বুদ্ধকারণে ঘরে ঘরে ক্যাম্পেইন অব্যাহত রাখতে হবে।

 

চসিক স্বাস্থ্য বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড অফিস এই কার্যক্রমের মনিটরিং চলমান রেখেছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন-চট্টগ্রাম স্বাস্থ্য অধিদরের পরিচালক ডা. শাহরিয়ার কবির, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ শহীদুল আলম, ওয়ার্ড কাউন্সিলর এম আশরাফুল আলম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম
আকতার চৌধুরী, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা শামসুল আলম, মো. নজরুল ইসলাম, মো. সেলিম উল্লাহ, আবুল কালাম প্রমুখ।